page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল
ব্লগ

আমেরিকান তিন বন্ধুর সিট বদলানোর কারণে প্যারিসে ট্রেনযাত্রীরা প্রাণে বাঁচলেন

আমেরিকান তিন বন্ধুর কারণে প্যারিসগামী যাত্রীভর্তি একটি দ্রুতগতির ট্রেনে গুলিবর্ষণের পরিকল্পনা বানচাল হয়েছে। তারা জানিয়েছে কত সহজেই তাদের উচ্ছাস ট্র্যাজেডিতে পরিণত হতে পারত।

ছুটি কাটাতে আসা তিন বন্ধুর একজন অ্যান্থনি স্যাডলার বলেন, ২১ আগস্ট, ২০১৫, শুক্রবারে তারা যখন আমস্টারডামে প্যারিসগামী ট্রেনটিতে ওঠেন তখন তারা তাদের প্রথম শ্রেণীর সিট পাচ্ছিলেন না। তাই তারা অন্য সিটে বসেন।

প্রেসিডেন্ট ওবামা তাদের তিনজনকে হিরো বলে প্রশংসা করেছেন। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্কোস হল্যান্ড ২৩ আগস্ট তাদেরকে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ সম্মাননা লিজিয়ন অব অনার প্রদান করেছেন। কিন্তু ২৩ আগস্ট প্যারিসে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে তারা বিনয়ী ছিলেন। তাদের একজন বলেছেন, হিরোইজম নয়, সুযোগ পেয়েছিলেন বলেই তারা সিট পরিবর্তন করেছিলেন।

train-5

প্যারিসগামী ট্রেনে বন্দুকধারীকে কীভাবে থামিয়ে ছিলেন, এক অনুষ্ঠানে সেই বর্ণনা দিচ্ছেন স্পেনসার স্টোন, অ্যান্থনি স্যাডলার ও অ্যালেক স্কারলাটোস।

২৩ বছর বয়সী কলেজ ছাত্র স্যাডলার বলেন, আমরা উঠে অন্য কামরায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম কারণ ওই কামরায় ওয়াইফাই অত ভালো ছিল না। আমাদের ভাব এমন ছিল যে, যেহেতু আমাদের ফার্স্ট ক্লাসের টিকেট আছে, আমাদের হয়ত ফার্স্ট ক্লাসে গিয়েই বসা উচিৎ।

তিনি আরো জানান, আমস্টারডাম ছাড়ার আধা ঘণ্টা পরেই তারা কামরা পরিবর্তন করেন এবং সেই কামরায়ই শ্যুটার গুলি করতে শুরু করে। আরো দুই ব্যক্তির সহায়তায় তারা তিনজন সেই বন্দুকধারীকে ধরে নিরস্ত্র করেন। সেই বন্দুকধারী ব্যক্তি একজন সন্দেহভাজন ইসলামিস্ট জঙ্গি। তার সাথে থাকা ব্যাগে আরো দুটি বন্দুক, একটি ছুরি এবং নয় ক্লিপ গুলি পাওয়া গেছে।

তিনজনের আরেকজন, ফার্স্ট ক্লাস এয়ারম্যান স্পেনসার স্টোন বলেছেন, তাকে দেখে মনে হচ্ছিল শেষপর্যন্ত সে মারামারি করতে প্রস্তুত আছে। আমরাও একই রকম প্রস্তুত ছিলাম। স্পেনসারের বাম হাতে এবং ডান চোখে আঘাত লেগেছে।

train-france-24

প্যারিসের এলিসে একটি অনুষ্ঠানে স্টোনকে লিজিয়ন অব অনার মেডেল দিচ্ছেন হল্যান্ড, আর হাততালি দিচ্ছেন স্কারলাটোস।

এই তিন আমেরিকান ছোটবেলায় ক্যালিফোর্নিয়ার মিডল স্কুলে পড়াকালীন সময় থেকেই বন্ধু। সেই বন্দুকধারীকে ধরার পর ২৩ আগস্ট, রবিবারে তারা প্রথম একসাথে তিনজন গণমাধ্যমের সামনে আসেন। স্টোনের হাতের বুড়ো আঙুল পুনরায় সংযোজনের অপারেশনের জন্য আগে থেকেই ব্যান্ডেজ করা ছিল, কিন্তু এই আক্রমণের সময় তাতে আরো আঘাত লেগেছে। কয়েক দিনের শেইভ না করা দাড়িতে তিনজনকেই বিধ্বস্ত এবং ক্লান্ত মনে হচ্ছিল।

তাদের মধ্যকার পারস্পরিক আস্থা ও বোঝাপড়া এতই ভালো যে সেদিন ট্রেনে সেই বন্দুকধারীকে ধরার জন্য একসাথে কোনো ইশারা ছাড়াই তিনজন উঠে পড়েছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে তারা একজন আরেকজনের কথা অসম্পূর্ণ বাক্য শেষ করছিলেন ও মুখ ও ভ্রুর ছোট ছোট অভিব্যক্তির মাধ্যমে একজন আরেকজনের সাথে যোগাযোগ করছিলেন।

স্টোন বলেন তিনি শুধু জানতেন আক্রমণকারীকে দ্রুত নিরস্ত্র করতে হবে, এটা ‘সারভাইভাল’। তিনি তখন গভীর ঘুমে মগ্ন ছিলেন, তখন তিনি যে ফরাসী নাগরিক বন্দুকধারীর ওপর প্রথমে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, তাদের মধ্যকার মৃদু ধস্তাধস্তির আওয়াজ পান। কিন্তু তখন তার আরেক বন্ধু, অরেগন আর্মি ন্যাশনাল গার্ডের সদস্য, সদ্য আফগানিস্তান ফেরত ২২ বছর বয়সী অ্যালেক স্কারলাটোস তার কাঁধে ধাক্কা দিয়ে বলেন, চলো।

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক
সাম্প্রতিক ডেস্ক