page contents
লাইফস্টাইল, সংস্কৃতি ও বিশ্ব
লাইফস্টাইল

উড়ন্ত বিমানে খাবারের স্বাদ এরকম লাগে কেন!

আপনি উড়ন্ত বিমানে বসে খাবার খাচ্ছেন, কিন্তু খাবারটা নিশ্চয়ই বিস্বাদ লাগছে? ফ্লাইটে দেওয়া খাবার না খেয়ে আপনার পছন্দের খাবার প্যাকেট করে নিয়ে গেলেও একই জিনিস ঘটবে।

১০ হাজার ফুট উপরে বসে খাবারটা বিস্বাদই লাগে। কিন্তু কেন? কারণটা এখানে:

খাবারের স্বাদে ও গন্ধে শুষ্কতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে
স্বাদ ও গন্ধের বিজ্ঞানটা যদিও একটু জটিল, কিন্তু, সাধারণত খাবারের স্বাদ ও গন্ধ যথাযথভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে বাতাসের আর্দ্রতার প্রয়োজন হয়। আর এই স্বাদ ও গন্ধই আপনার খাবার কেমন লাগবে তা নির্ধারণ করে।

ফ্লাইটের উচ্চতা অনুযায়ী জলীয়বাষ্পের পরিমাণ ১৫% এরও নিচে নামতে পারে এবং তা মরু অঞ্চলের আর্দ্রতার চেয়েও কম। কম আর্দ্রতা আর কেবিনের লো প্রেশারের কারণে আমাদের টেস্ট বাড লবণাক্ত এবং মিষ্টি জাতীয় খাবারের প্রতি কম সংবেদনশীল হয়ে পড়ে।

airplane-food-45

উড়োজাহাজের তীব্র শব্দও ফ্লাইটে খাবার বিস্বাদ লাগার আরেকটা কারণ।

সবচেয়ে বড় যে ব্যাপারটা তা হলো এমন পরিবেশে আমাদের ঘ্রাণের ইন্দ্রিয়ও শিথিল হয়ে পড়ে, ঠাণ্ডা বা সর্দি লাগলে যেমন হয়। যেমন, ঠাণ্ডা বা সর্দিতে নাক বন্ধ হলে আমরা খাবারের ঘ্রাণ বুঝতে পারি না, আমাদের স্বাদের অনুভূতিও এ সময় কমে যায়।

শব্দ বা অতিরিক্ত আওয়াজের সাথেও এর সম্পর্ক আছে
উড়োজাহাজের তীব্র শব্দও ফ্লাইটে খাবার বিস্বাদ লাগার আরেকটা কারণ। ফ্লাইটের সময় শব্দের মাত্রা ৮৫ ডেসিবলে পৌঁছে যায় (এমনকি টেকঅফ এবং ল্যান্ডিং-এর সময়ে আরো বেশি হতে পারে)। আপনার খাবারের স্বাদের ওপর এর বেশ প্রভাব থাকতে পারে।

এই অবস্থায় খাবার খাওয়ার সময়ের শব্দও অনেক বেড়ে যায় , ফলে খাবারের স্বাদ বোঝা কঠিন হয়ে পড়ে। এমনকি মিষ্টি ও মিষ্টি ফ্লেভারের স্বাদ বোঝার ক্ষমতাকে অতিরিক্ত শব্দ প্রভাবিত করে।

সমাধান—উমামিসমৃদ্ধ খাবার
ফ্লাইটের শুষ্কতা এবং অতিরিক্ত শব্দে যখন আপনার মিষ্টি কিংবা লবণাক্ত খাবারের স্বাদ আর ঠিক থাকে না, কিন্তু মিষ্টি বা লবণাক্ত নয় এমন খাবারের স্বাদ ঠিক থাকে, এমনকি স্বাদ বেড়েও যায়। একে বলা হয় ‘উমামি’ ধরনের খাবার। ‘উমামি’ খাবারের স্বাদের পঞ্চম অবস্থা। এটি গ্লুটামেট জাতীয় খাদ্যে বেশি পরিমাণে থাকে। এটা লবণাক্ত ও মিষ্টি স্বাদের মাঝামাঝি অবস্থা। টমেটোতে এই জাতীয় ‘উমামি’ বেশি থাকে। এমনকি যারা সাধারণত টমেটো খায় না বা পছন্দ করে না তারাও ফ্লাইটের সময়ে টমেটো জুস অর্ডার করে থাকে।

আজকাল বিভিন্ন ফুড-কোম্পানি ফ্লাইটের মধ্যে উমামিসমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ করে, যাতে বিমান ভ্রমণের সময় আপনি খাবারের স্বাদ ঠিকমত পান।

একারণেই ফ্লাইটে থাকাকালীন মেন্যুতে মাশরুম, টমেটো, সয়া-সসের ব্যবহার বেশি এমন খাবার দেখা যায়।

১০ হাজার ফুট উপরে ভ্রমণ করার সময় এসব ছাড়া আপনি কি আর অন্য কোনো খাবারে মজা পান?

About Author

নাদিয়া নাহরিন রহমান
নাদিয়া নাহরিন রহমান

শিক্ষার্থী: গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়