ভ্যারাইটি’র দেওয়া তথ্যমতে, চলচ্চিত্র পরিচালক রোমান পোলানস্কি’র ৪০ বছর পুরানো ধর্ষণ মামলা প্রত্যাহার করে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি আদালত। পোলানস্কি আদালতে উপস্থিত হতে চান না বলেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

১৮ আগস্ট, ২০১৭ তারিখে এই সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়। বাদী সামান্থা গেইমারকে ১৩ বছর বয়সে পোলানস্কি ধর্ষণ করেছিলেন বলে ১৯৭৭ সালে অভিযোগ করা হয়েছিল। তবে ২০১৭ সালের জুন মাসে  “তার নিজের এবং তার পরিবারের প্রতি অনুগ্রহ করে” আদালতের কাছে এই মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়ার আবেদন করেন সামান্থা।

সামান্থা গেইমার, ১৩ বছর বয়সে

কিন্তু বাদী নিজেই মামলা উঠিয়ে নিতে চাইলেও এই সপ্তাহে রবিন নামের এক মহিলা আদালতে এসে এরকম কোনোপ্রকার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। বিবৃতিতে পোলানস্কির আদালতের শাস্তি ভোগ না করার ব্যাপারে তার ক্ষোভের কথা জানান তিনি।

এ নিয়ে গত চার মাসে দ্বিতীয়বারের মতো মামলাটি প্রত্যাহারের আবেদন নাকচ করে দেওয়া হলো।

২০১৭ কান চলচ্চিত্র উৎসবে ‘বেইজড অন আ ট্রু স্টোরি’ সিনেমার প্রদর্শনীতে (বাঁ থেকে) অভিনেত্রী ইভা গ্রেন, রোমান পোলানস্কি ও তার বর্তমান স্ত্রী অভিনেত্রী ইমানুয়েল সেনিয়ের

১৯৭৭ সালের আগস্ট মাসে মডেল ও অভিনেত্রী সামান্থা গেইমারের সাথে অবৈধ যৌনসঙ্গমের অভিযোগে পোলানস্কি ৪২ দিন কারাবন্দি ছিলেন।

সামান্থাকে তিনি মাদকদ্রব্য ও অ্যালকোহল সেবন করিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ করা হয়। কিন্তু আনুষ্ঠানিক শুনানির আগেই ১৯৭৮ সালে ফ্রান্সে পালিয়ে যান তিনি।

এখনো পর্যন্ত ইউএস থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ফ্রান্স ও পোল্যাণ্ডের যৌথ নাগরিকত্ব আছে তার। মামলার শাস্তি উপলক্ষে তাকে ইউএসে ফিরিয়ে নিয়ে আসার অনেক চেষ্টা করা হলেও তা সফল হয় নাই।

সামান্থা গেইমার, বামে, লস অ্যাঞ্জেলেসের কোর্টে, ৯ জুন ২০১৭

পোলানস্কির উকিল হারল্যান্ড ব্রউন আদালতের কাছে আবেদন করেছেন যেন তার মক্কেলের অনুপস্থিতিতেই সাজার রায় ঘোষণা করা হয়; কেননা, এই মামলায় কিছুদিন হলেও তিনি জেল খেটেছেন।

ধর্ষণের মামলার কোনো নিষ্পত্তি না হলেও রোমান পোলানস্কি একজন চলচ্চিত্র পরিচালক হিসাবে সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে নির্মিত সিনেমা ‘দ্য পিয়ানিস্ট’ এর জন্য ২০০৩ সালে অস্কার পান তিনি। এখনো কান চলচ্চিত্র উৎসবের মত বিশিষ্ট সব আয়োজনে তার সিনেমা মূল প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র. হাফিংটন পোস্ট. ১৯/৮/২০১৭

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here