page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল
লাইফস্টাইল

বাতিল সেল ফোন থেকে আহরিত সোনা রুপা ব্রোন্জ দিয়ে ২০২০ অলিম্পিকে মেডাল বানাবে জাপান!

পুরনো বাতিল হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোনসহ নানারকম ইলেক্ট্রনিক গ্যাজেটগুলি এক সময় গারবেজ হিসাবে ডাম্প করা হয়। হলেও এসব প্লাস্টিক এবং ধাতুর সংমিশ্রনে তৈরি জিনিসের খোলস কখনো প্রকৃতির সাথে মিশে যায় না। বরং পরিবেশ দূষণ করে। রাসায়নিক প্রতিক্রিয়ার কারণে ক্যানসারের মত রোগ বৃদ্ধি পায়। গাছপালা, পশুপাখী, সামুদ্রিক জলজ প্রাণীর বিশাল ক্ষতি সাধন হয়।

murad hai 3 logo

এসবে থাকা ধাতু পরিমাণে কম হলেও সমস্যা হল গারবেজে ফেলে প্রাকৃতিক ভারসাম্য নড়বড়ে হয়। উন্নত দেশগুলি তাই নিজেদের দেশের পরিবেশ বাঁচাতে সাহায্যের নামে পুরনো বাতিল হয়ে যাওয়া কম্পিউটার, মোবাইল ফোনের মত বিপদজনক গ্যাজেটগুলি তৃতীয় বিশ্বের গরীব দেশগুলিতে পাঠায় উপহারের নামে। কিছুদিন ব্যবহারের পর এসবের খোলা অংশগুলি ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকে রাস্তাঘাটে, নালা নর্দমা, নদীতে, বনে বাদাড়ে। গরীব শিশুদের খেলনা হিসাবে ঘরে ঘরে এই জীবন্ত মারণাস্ত্র শোভা পায়।

olympic--1

প্রকৃতির সাথে না মিশে যাওয়া এমন গারবেজের পরিমাণ এক দুই টন নয়। বরং লাখ লাখ টন। শুধু জাপানে বছরে সাড়ে ছয়’ লক্ষ টন এমন গারবেজ তৈরি হয়। তার ভিতর মাত্র এক লাখ টন ইলেক্ট্রনিক গারবেজ রিসাইকেল করা হয়। বাকি সব প্রকৃতির বারোটা বাজায়।

মজার ব্যাপার হল, সব মোবাইল ফোনের ভিতর সোনা, রুপা,ব্রোন্জের মত মূল্যবান ধাতু আছে। এই ধাতু সংগ্রহ করে কাজে লাগানোতে হাত দিয়েছে জাপান সরকার।

দুই হাজার বিশ সালের অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে জাপানে। হাতে চার বছর সময় থাকলেও জাপান বসে নাই। তারা কাজ আরম্ভ করে দিয়েছে।

olympic--3

মেডাল জিততে না পারা স্বদেশী পুরুষ জিমন্যাস্টদের দিকে নিজের মেডাল ছুঁড়ে দিয়েছেন ৪ সোনা জেতা আমেরিকান জিমন্যাস্ট সিমন বাইল।

জাপানের পরিবেশবাদীরা প্রতিবাদ করছে এসব ই-ওয়েস্টের কারণে পরিবেশ দূষণ বন্ধ করার জন্য। তারা এটা নিয়ে গবেষণা করে সুন্দর সল্যুশন বের করেছে। দুই হাজার চৌদ্দ সালে এসব ফেলে দেয়া গ্যাজেট থেকে তারা সাড়ে তিন হাজার পাউন্ড রুপা উদ্ধার করেছে। ইউনাইটেড ন্যাশনের হিসাবে শুধু দুই হাজার চৌদ্দ সালে ইলেক্ট্রনিক গ্যাজেটের গারবেজের পরিমাণ ছিল ছেচল্লিশ মিলিয়ন টন।

পরিবেশবাদীদের আবেদনে সাড়া দিচ্ছে জাপান সরকার। ই ওয়েস্টকে কাজে লাগানোর ভাল উপায় বের করে নিয়েছে তারা।

এই বছর ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে অনুষ্ঠিত অলিম্পিকের একটা সোনার মেডালে ছিল এক পাউন্ড রুপা আর মাত্র এক আউন্সেরও কম সোনা। সোনার মেডাল বললেও সেটা পুরো সোনার তৈরি নয়। সোনা উপলক্ষ (symbolic) মাত্র। জাপান ঘোষণা করেছে, তারা তাদের দেশে আগামীর অলিম্পিকের সব মেডাল তৈরি করবে ফেলে দেয়া ইলেক্ট্রনিক গারবেজ থেকে রিসাইকেল করে পাওয়া ধাতু (সোনা, রুপা, ব্রোন্জ) দিয়ে।

এক ঢিলে দুই পাখি মারবে তারা। পরিবেশ বাঁচাবে, গারবেজের যথার্থ ব্যবহারও নিশ্চিত করবে। পৃথিবীর মানুষ শিক্ষা পাবে পরিবেশ বাঁচানোর।

About Author

মুরাদ হাই
মুরাদ হাই

জন্ম হাতিয়ায়। ১৯৬০ সালের ৯ অক্টোবর। ১৯৭৯ থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। পড়তেন মার্কেটিং বিভাগে। থাকতেন সূর্যসেন হলে। ১৯৮৯ সালে পাড়ি জমান নিউইয়র্কে। সে অবধি সেখানেই আছেন। দুই ছেলে রেশাদ ও রায়ান ছাত্র, স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা স্কুলের শিক্ষিকা।