মেসি’কে ইন্টার মায়ামি’তে নিতে চান ডেভিড বেকহাম

মেজর লিগ সকারে ডেভিড বেকহামের দল খেলা শুরু করবে ২০২০ সালে। গত আগস্টে বেকহাম তার দলের নাম ও ক্লাব ক্রেস্ট উন্মোচন করেছেন।

ক্লাবটির নাম ইন্টার মায়ামি এবং ডেভিড বেকহাম এই ক্লাবের মালিক।

এই ক্লাবের এখন প্রধান এজেন্ডা ২০২০ সালেই লিওনেল মেসিকে তাদের দলে ভিড়ানো। অথচ বর্তমান চুক্তি অনুযায়ী বার্সেলোনায় মেসির মেয়াদ শেষ হবে ২০২০/২১ মৌসুমে। তখন মেসির বয়স হবে ৩৩। মেসির সাথে গত নভেম্বরেই বার্সেলোনার যে চুক্তি হয়েছে তাতে ৬২৬ মিলিয়ন পাউন্ডের রিলিজ ক্লজ রয়েছে।

মেসি গত বছর বার্সেলোনাকে আরো একটি লা লিগা শিরোপা জিতিয়েছেন।

গত বছর ম্যানচেস্টার সিটি মেসিকে তাদের দলে নিতে চাইলেও মেসি বার্সেলোনার সাথে চুক্তি নবায়ন করেছিলেন।

মায়ামি যদি সত্যি সত্যি মেসিকে তাদের দলে সাইন করাতে পারে তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লীগ সকারের ইতিহাসে বেকহামের পরে এটাই হবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আলোচিত সাইনিং এর ঘটনা।

ডেভিড বেকহাম লস অ্যাঞ্জেলসে যোগ দেওয়ার পর থেকে কাকা, ইব্রাহিমোভিচ, স্টিভেন জেরার্ড, ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড, ডেভিড ভিয়া ও আন্দ্রে পিরলো’র মত বড় বড় প্লেয়াররা যুক্তরাষ্ট্রের ক্লাবগুলিতে যোগ দিয়েছেন।

কিন্তু সেগুলির তুলনায়, এমনকি বেকহামের ট্রান্সফারের তুলনায়ও মেসির ট্রান্সফার অনেক বড় ঘটনা হবে। এবং সম্ভবত ১৯২৫ সালে পেলে’র নিউইয়র্ক কসমসে যোগ দেওয়ার পর থেকে এটাই হবে সবচেয়ে বড় ট্রান্সফার।

মায়ামিতে প্রচুর হিস্প্যানিক ও দক্ষিণ আমেরিকার মানুষ বাস করে, তাই মেসি তাদের জন্য বড় একটা আকর্ষণ হিসাবে কাজ করবে।

ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় বার্সেলোনায় কাটানোর পরে, মেসি আরেকটি ইউরোপিয়ান ক্লাবে খেলতে আগ্রহী না। ইতোমধ্যে একটি টিভি সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছিলেন ক্যারিয়ারের শেষ দিকে তিনি তার দেশ আর্জেন্টিনার কোনো ক্লাবে খেলতে চান।

মেসি বলেছিলেন, আমি বেশ ভালোভাবেই নিশ্চিত যে ইউরোপে বার্সেলোনাই হবে আমার একমাত্র ক্লাব। আমি সবসময় বলেছি আমি একদিন আর্জেন্টাইন ফুটবল খেলতে চাই। আমি জানি না এটা হবে কিনা, তবে এটা আমার মনের মধ্যে আছে। এটা নিউওয়েলস হবে, অন্য কোথাও না। আমি অন্তত ছয় মাসের জন্য হলেও সেখানে খেলতে চাই, তবে আপনি কখনোই জানেন না আসলে কী ঘটবে।

তবে মেসি ইন্টার মায়ামির ব্যাপারে আগ্রহী হবেন কিনা সে ব্যাপারে কিছুই বলা যাচ্ছে না।  ডেভিড বেকহাম ইন্টার মায়ামি ক্লাবের প্রজেক্ট শুরু করার পরে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে মেসি একটি বার্তায় বেকহামকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। মেসি বলেছিলেন, হাই ডেভিড, প্রথমে অভিনন্দন, আশা করি নতুন প্রজেক্টটির ব্যাপারে সবকিছু খুব ভাল যাবে, আপনি যে নতুন পদক্ষেপ নিলেন তাতে হয়ত দেখা যাবে কয়েক বছর পরে আপনি আমাকে কল করবেন।

মেসির এই বার্তার কারণেই হয়ত বেকহাম তার ব্যাপারে আশাবাদী হয়ে উঠেছেন।

তবে শুধু মেসিই না, ওয়েইন রুনি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকেও তাদের সম্ভাব্য টার্গেটে রেখেছে ডেভিড বেকহামের এই ক্লাব।

ইন্টার মায়ামি ক্লাবটির এখনো কোনো নিজস্ব স্টেডিয়াম নেই এবং কোনো দল তৈরি হয় নি। আগামী দুই বছরের মধ্যে সবকিছু গুছিয়ে উঠতে পারবে বলে আশা করছে ক্লাবটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here