page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল
লাইফস্টাইল

রূপ তেরা মাস্তানা—কিশোর কুমার ও শচীন দেববর্মণের মধ্যরাত্রির উদ্ভাবন

শচীন দেব বর্মণ তখন হিন্দী ছবি ‘আরাধনা’র জন্য গান কম্পোজ করছিলেন। কিন্তু গানের সুর কোনো ভাবেই তার মনমত হচ্ছিল না। তিনি একটা গান রেকর্ডিং এর জন্য কয়েকবার গায়ক কিশোর কুমারকে ডেকেছিলেন, কিন্তু একবারও গানটি রেকর্ডিং করা সম্ভব হয় নি।

আরাধনার গান নিয়ে কাজ করতে করতে একদিন শচীন দেব এতটাই ব্যস্ত ছিলেন যে তার আর সময়ের দিকে খেয়াল ছিল না। সেদিন অনেক রাত হয়ে গেছে, কিন্তু তখনও তিনি স্টুডিওতে। এতটাই উত্তেজিত ছিলেন যে গভীর রাতেই শচীন কিশোর কুমারকে ফোন করে বললেন স্টুডিওতে এসে গানটা রেকর্ড করে দিতে।

কিশোর কুমার ও শচীন দেববর্মন

এমনিতেই কিশোর কুমার ছিলেন বেশ মেজাজী মানুষ। এত রাতে ফোন করে ঘুম ভাঙানোর কারণে তিনি বিরক্ত হলেন। কিন্তু শচীন দেবের সাথে তার বিশেষ সম্পর্ক ছিল। বর্মণকে তিনি দাদা ডাকতেন। তাই না করতে পারলেন না, বিরক্তি লুকিয়ে গভীর রাতেই স্টুডিওতে আসলেন গান রেকর্ডিং করতে।

কিন্তু স্টুডিওতে এসে গানের সুর শোনার সাথে সাথেই কিশোর শচীন দেবের ওপর ক্ষেপে গেলেন। শচীন দেব বর্মণকে তিনি বললেন, ধুর! দাদা এই বিরক্তিকর গান গাওয়ার জন্য আপনি আমাকে এত রাতে ফোন করে ডেকেছেন!

কিশোর কুমারের এই কথা শুনে শচীন দেব রাগ করে রেকর্ডিং রুম থেকে বের হয়ে গেলেন আর কিশোরকে বলে গেলেন গান যাতে ঠিকঠাকমত শেষ করা হয়। শচীন বের হয়ে যাওয়ার পর কিশোর বুঝলেন কাজটা তিনি ঠিক করেন নাই, দাদার সাথে তার উত্তেজিত হওয়া ঠিক হয় নাই।

তিনি তখন শচীনের দেবের একটা বিখ্যাত বাংলা ভাটিয়ালি গানের সুর ব্যবহার করে গানটি শেষ করেন। আর এই গানটিই কিশোর কুমারের গাওয়া জ্যাজ ফ্লেভারের বিখ্যাত হিন্দী গান ‘রূপ তেরা মাস্তানা’।


Roop Tera Mastana – Aradhana – 1969 – Rajesh Khann – Sharmila Tagore – Kishore Kumar

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক
সাম্প্রতিক ডেস্ক