ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার মঈন আলী এক সাক্ষাৎকারে অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট দলের আগ্রাসী মনোভাবের সমালোচনা করে বলেছেন, তাদের মধ্যে সম্মানের অভাব আছে এবং তারা অতীতে রূঢ় ব্যবহার করেছেন। সাক্ষাৎকারটিতে বেশ খোলাখুলিভাবে কথা বলেছেন মঈন আলী।

মঈন আলী বলেছেন, অস্ট্রেলিয়ায় দলের আচরণের ব্যাপারে তার সমস্যা শুরু হয় ২০১৫ সালে, যখন মাইকেল ক্লার্ক অস্ট্রেলিয়া দলের অধিনায়ক ছিলেন।

তখন অস্ট্রেলিয়ার কাছে অ্যাশেজে ইংল্যান্ডের ৪-০ ব্যবধানে হেরে যাওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ ছিল ব্যাটিং এবং বোলিং দুই ক্ষেত্রেই মঈন আলীর মারাত্মক বাজে পারফরম্যান্স। এবং এই কারণে মঈন আলী প্রথম বারের মত তার ক্যারিয়ারে দল থেকে বাদ পড়েছিলেন।

“আমার সারা জীবনে যত দলের বিরুদ্ধে খেলেছি তাদের মধ্যে তারা হল একমাত্র দল যাদেরকে আমি অপছন্দ করেছি।” – মঈন আলী

মঈন আলী বলেছেন, আপনি যার সাথেই কথা বলেন… আমার সারা জীবনে যত দলের বিরুদ্ধে খেলেছি তাদের মধ্যে তারা হল একমাত্র দল যাদেরকে আমি অপছন্দ করেছি। এই কারণে না যে দলটা হল অস্ট্রেলিয়া এবং আমাদের পুরাতন শত্রু, এর কারণে হল তারা যেভাবে প্রতিপক্ষের মানুষ এবং খেলোয়ারদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করে। যুক্তরাজ্যের টাইমস পত্রিকার সাথে সাক্ষাৎকারে এই কথা জানিয়েছেন মঈন আলী।

পুনরায় দলে ফিরে, ৪-১ ব্যবধানে ইন্ডিয়াকে সিরিজ হারানোতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন মঈন আলী। তিনি এটাও বলেছেন যে অস্ট্রেলিয়ার তিন খেলোয়াড়—ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট নিষিদ্ধ হওয়ায় তার কোনো সহানুভূতি নেই।

তার কথায়, আমি এমন একজন ব্যক্তি যে মানুষের সাথে খারাপ কিছু হলে সাধারণভাবেই দুঃখ অনুভব করে, কিন্তু তাদের ব্যাপারে দুঃখ পাওয়া কঠিন ব্যাপার। ২০১৫ বিশ্বকাপের আগে, ২০১৫ সালে তাদের বিরুদ্ধে আমি সর্বপ্রথম খেলি, তারা শুধু আমার প্রতি খারাপ আচরণই করছিল না, তারা আমাকে গালি দিচ্ছিল। তখন প্রথম বার জিনিসটা আমাকে আঘাত করে। আমি তাদের বেনিফিট অব ডাউট দিয়েছি, কিন্তু আমি তাদের বিরুদ্ধে পরে আরো যতবার খেলেছি তারা একই রকম খারাপ ছিল, আর সেই অ্যাশেজে (২০১৫) তারা জঘন্য ছিল আসলে।

মঈন আলী বলেছেন, তারা বিরক্ত করছিল না, শুধু রূঢ় আচরণ করছিল। আলাদা আলাদাভাবে তারা বেশ ভাল এবং ওরসেস্টারে যে অজি দলের সাথে আমরা খেলেছি তারা অসাধারণ ছিল, সবাই সুন্দর।

মঈন আলী জানিয়েছেন এর আগের অ্যাশেজে নাথান লিওনের বিরুদ্ধে খেলতে তাকে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে এবং অস্ট্রেলিয়ায় তিনি ‘চাপ ও ধকল’ সামলাতে পারেন নি।

তিনি বলেছেন, এটা আমার প্রথম অ্যাশেজ ছিল ও আমি এটাতে ভাল করার জন্য মরিয়া ছিলাম এবং এটার দিকে তাকিয়েছিলাম। সিরিজ শুরু হওয়ার আগে আমি শর্ট বলের ব্যাপারে কঠিন পরিশ্রম করেছি, সম্ভবত অতিরিক্ত পরিশ্রম করে ফেলেছিলাম। এরপরে লিওন আমাকে আউট করতেই থাকে। এটা মোকাবিলা করাটা আমার জন্য কঠিন হয়ে পড়েছিল। আমি কখনোই মনে করিনি স্পিন বল খেলার ক্ষেত্রে আমি খারাপ খেলোয়াড় কিন্তু আমি তার বিরুদ্ধে আমি আসলেই ভাল খেলতে পারি নি। আমি উইকেটও পাচ্ছিলাম না, সবকিছু কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে গিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here