page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল
ব্লগ

কীভাবে সহজে ডিম ভাজবেন

egg

ভাল ভাবে ডিম ভাজতে পারাটা জরুরি ব্যাপার। বেশির ভাগ মানুষের রান্না শেখা শুরু হয় ডিম ভাজা দিয়ে। ডিম ভাজতে আপনার যা যা লাগবে:

  • ডিম
  • ডিমপ্রতি ১ টেবিল চামচ বাটার বা সয়াবিন তেল (২টি ডিমের জন্যে ২ টেবিল চামচ; যে কোনো তেলই দিতে পারেন। তবে বাটার ডিমকে বাড়তি আভিজাত্য দিবে।)
  • ননস্টিক ফ্রাই প্যান বা স্টেইনলেস স্টিলের কড়াই (স্টেইনলেস স্টিলের পাত্রে ডিম ভাজতে তেল বা বাটার বেশি লাগবে)

১. বাটার গলিয়ে নিন
ফ্রাই প্যান বা কড়াইয়ে মধ্যম আঁচে বাটার গলিয়ে নিন।

২. গরম পাত্রে তেল ছড়িয়ে নিন
কড়াইটিকে হাতে ধরে ঘুরিয়ে নিন যাতে মোটামুটি সব জায়গায় তেল বা বাটারের স্তর পড়ে। তেল যথেষ্ট গরম হতে হবে। ফেনা হতে পারে তবে তা বাদামি রং ধরার আগেই ডিম ছাড়তে হবে।

৩. ডিমটি ভাঙুন
অনেকে ডিম ভেঙে ডাইরেক্ট কড়াইতে ঢেলে দেয়। তবে আপনার সুবিধার জন্যে ডিম ভেঙে বাটিতে রাখতে পারেন। কড়াইয়ে ধীরে ডিমটি ঢালতে হবে যাতে সাদা অংশটি গরম পাত্রে আগে পড়ে। পাত্র যথাযথ গরম থাকলে সাদা অংশ বসে যাবে ও ডিমের কুসুমটি না ছড়িয়ে ডিমের মাঝখানে সেট হয়ে যাবে। চেষ্টা করবেন যাতে ডিমের কুসুমটি যথাসম্ভব কড়াইয়ের সেন্টারে বা কেন্দ্রে থাকে।

ডিমের কুসুম যথাসম্ভব কড়ায়ের সেন্টারে ঢালুন। ছবি. WikiHow

৪. ডিম ভাজুন
ডিম কড়াইতে ছাড়ার পর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। ২ মিনিটের মাথায় ডিমের সাদা অংশ জমে যাবে। ডিমের চারপাশ কুঁকড়ে এলে বুঝতে হবে ডিম ভাজা হয়ে গেছে। তবে যদি সাদা অংশ জমে যাওয়ার আগেই কোণার দিক কুঁকড়ে আসে তাহলে কড়াইটি এক-দুই মিনিটের জন্য ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। অনেকে ডিমের সানি সাইড বা কুসুম অলা সূর্যমুখ দেখতে পছন্দ করে। তাদের জন্যে ডিমের একপাশই ভাজতে হবে। যারা নরম কুসুমঅলা ডিম অপছন্দ করে তাদের জন্যে নিচের অংশ হয়ে এলে উল্টে দিতে হবে ডিম।

৫. ডিমের উল্টাপিঠ কতক্ষণ ভাজবেন
ডিমের উল্টা পিঠ যদি অল্প সময়ের জন্যে ভাজেন তাকে অনেকে বলে ওভার ইজি ডিম ভাজা। মানে হলো আপনি ডিমের দুই পাশই ভাজবেন, বাট ডিমের কুসুম নরম থাকবে। এরকম ভাবে ডিম ভাজতে হলে ডিমের একপাশের সাদা অংশ যথেষ্ট শক্ত হয়ে ওঠার আগেই ডিম উল্টে দিয়ে ৩০ সেকেন্ডে পরে বা আপনার মনমত অবস্থায় তা উঠিয়ে ফেলতে হবে। এখানে ওভার বলতে ডিম যে উল্টে দিতে হবে তা বোঝায় আর ইজি বলতে কুসুমের অবস্থা। ডিমের কুসুম কী অবস্থায় চান তার ওপর নির্ভর করে ওভার মিডিয়াম বা ওভার হার্ড ডিমও আপনি ভাজতে পারেন।

৬. লবণ ও গোলমরিচ
যারা ডিমে লবণ বা গোলমরিচ গুড়া খান তারা সেটি পাত্রে ডিম থাকা অবস্থায় বা ওঠানোর পর যুক্ত করতে পারেন। তবে কাচা লবণ যত কম খাবেন বা না খাবেন তত ভালো।

like us on Facebook or follow us on Twitter.

 

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক
সাম্প্রতিক ডেস্ক