page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল
ব্লগ

সুপার সিল্কের জন্যে রেশম পোকাদের খাওয়ানো হচ্ছে কার্বন ন্যানোটিউব ও গ্রাফিন

গ্ল্যামারাস পোশাকের উজ্জ্বল উপাদান সিল্ক খুব শক্ত একটি জিনিস। এই সিল্ককে আরো শক্তিশালী ও কঠিনতর করার একটি উপায় আবিষ্কার করেছেন গবেষকরা। রেশম পোকাকে গ্রাফিন বা কার্বন ন্যানোটিউব খাওয়ানোর মাধ্যমে এটা করা সম্ভব।

রেশম পোকা থেকে এই পদ্ধতিতে যেসব শক্তিশালী সিল্ক তৈরি করা হবে তা শক্তিশালী ফেব্রিকস, চিকিৎসা সংক্রান্ত কাজে এবং পরিবেশ বান্ধব পরিধানযোগ্য ইলেক্ট্রনিকস হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

গবেষকরা এর আগে সিল্কে ন্যানোপার্টিকেলস, বিদ্যুৎ পরিবাহী পলিমার, অ্যান্টি মাইক্রোবায়াল এজেন্টস, ডাইস যোগ করেছিলেন। গবেষকরা দুইভাবে এটা করেছিলেন। সিল্কের সাথে এডিটিভ যোগ করেছিলেন, আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে রেশম পোকাকে সরাসরি এই এডিটিভ খাইয়েছিলেন।

silk-worm-23রেশম পোকার লার্ভা সাধারণত তুত খেয়ে থাকে, তারা তাদের লালা গ্রন্থিতে সিল্ক প্রোটিনের দ্রবণ থেকে সিল্ক উৎপন্ন করে।

কার্বন প্রয়োগ করা সিল্ক তৈরি করার জন্য সিংঘুয়া ইউনিভার্সিটির ইয়িংইয়িং ঝ্যাং ও তার সহকর্মীরা রেশম পোকাদেরকে কার্বন ন্যানোটিউব অথবা গ্রাফেনের দ্রবণ স্প্রে করা তুত খাইয়েছেন। তারপরে সাধারণ সিল্ক উৎপাদন প্রক্রিয়ার মতই সিল্ক সংগ্রহ করেছেন। এই প্রক্রিয়াটি খুবই সহজ এবং পরিবেশবান্ধবও।

সাধারণ সিল্কের তুলনায় এই কার্বন প্রয়োগ করা সিল্ক বেশি কঠিন ও শক্তিশালী এবং ৫০ শতাংশ বেশি চাপ সহ্য করতে পারে।

গবেষণা দলটি সিল্ক প্রোটিনকে কার্বোনাইজ করার জন্য ১০৫০ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় তাপ দেন এবং তারপরে এর পরিবাহিতা ও গঠন পরীক্ষা করেন। দেখা গেছে এই পরিবর্তিত সিল্ক বিদ্যুৎ পরিবহন করে, যেটা সাধারণ সিল্ক করে না। এই পরিবর্তিত সিল্কের গঠনও সাধারণ সিল্কের চেয়ে উন্নত।

তবে কিছু প্রশ্ন আছেই। একটি হল, এই ন্যানো ম্যাটেরিয়ালগুলিকে রেশম পোকা কীভাবে তাদের সিল্কে নিয়ে আসে। আরেকটি প্রশ্ন হলো, রেশম পোকাকে যে পরিমাণ ন্যানো ম্যাটেরিয়াল খাওয়ানো হয় তার কত শতাংশ সিল্কে আসে।

silk-worm-27

ইয়িংইয়িং ঝ্যাং বলেছেন, সিল্কের ক্রস সেকশনে কার্বন ম্যাটেরিয়াল দৃশ্যমান না, এর কারণ সম্ভবত ন্যানো পার্টিকেলের পরিমাণ খুব সামান্য। এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়ত জীববিজ্ঞানীদের কাজ।

দোংহুয়া ইউনিভার্সিটির পলিমার কেমিস্ট কিং শেন ২০১৪ সালে একই ধরনের কার্বন ন্যানোটিউব সিল্কের ব্যাপারে বলেছিলেন।

দোংহুয়া ইউনিভার্সিটির ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্টিস্ট ইয়াওপেং ঝ্যাং বলেছেন, এই গবেষণাটি ব্যাপক আকারে শক্তিশালী সিল্ক ফাইবার উৎপাদন করার রাস্তা দেখাচ্ছে।

ইয়াওপেং ঝ্যাং এর আগে অতিবেগুনি রশ্মি প্রতিরোধী শক্তিশালী সিল্ক উৎপাদন করার জন্য রেশম পোকাদের টিটানিয়াম ডাইঅক্সাইড ন্যানো পার্টিকেল খাইয়েছিলেন।

তিনি বলেন, কার্বন প্রয়োগ করা সিল্কের বিদ্যুৎ পরিবহন করার ক্ষমতার কারণে কিছু স্মার্ট টেক্সটাইলে সেন্সর প্রয়োগ করা যাবে এবং নার্ভ সিগন্যাল ধরতে পারা সম্ভব হবে।

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক
সাম্প্রতিক ডেস্ক