Subscribe Now
Trending News

Blog Post

নিউজ

আইরিশ আদালতের রায়: ‘সাবওয়ে’ স্যান্ডউইচে ব্যবহৃত ব্রেড কোনো ব্রেড নয় 

গত মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, আয়ারল্যান্ডের আদালতের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক ফাস্টফুড চেইন ‘সাবওয়ে’তে পরিবেশিত ব্রেড নিয়ে একটি রায় প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সাবওয়ে’ চেইনে যেসব রুটি দিয়ে স্যান্ডউইচ বানানো হয়, সেগুলিতে অতিরিক্ত চিনি দেয়া থাকে। ফলে দেশটির শুল্ক আইন অনুসারে সেসব ব্রেডকে ব্রেড বিবেচনা করা যাবে না।

আয়ারল্যান্ডের ১৯৭২ সালের ভ্যালু-অ্যাডেড ট্যাক্স আইন অনুসারে রুটি, চা, কফি, কোকোয়া কিংবা দুধের মতো পণ্যকে প্রধান খাদ্যপণ্য হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এবং আইসক্রিম, চকলেট, পেস্ট্রি, পপকর্ন বা রোস্টেড বাদামের মতো পণ্যগুলিকে ভোক্তাদের ঐচ্ছিক গ্রহণের পণ্য হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। আর এই দুই ধরনের পণ্যের উপরে ভিন্ন ভিন্ন অনুপাতে শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। একই আইনে বলা হয়েছে যে, রুটি তৈরির ক্ষেত্রে খামিরে ব্যবহার করা ময়দার তুলনায় চিনির পরিমাণ ২% এর বেশি হওয়া যাবে না।

অথচ সাবওয়েতে যেসব রুটি দিয়ে স্যান্ডউইচ বানিয়ে বিক্রি করা হয়, সেগুলিতে চিনির পরিমাণ প্রায় ১০%। তবে রায় প্রকাশ হওয়ার পরে সাবওয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, তাদের রেস্টুরেন্টের রুটিগুলি রুটি হিসেবেই বিবেচনা করার যোগ্য। আয়ারল্যান্ডে সাবওয়ে’র কার্যক্রম পরিচালনা করে ‘বুকফাইন্ডার্স লিমিটেড’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান। তারা আইরিশ আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে দাবি করেছে যে, সাবওয়ে’তে বিক্রি হওয়া স্যান্ডউইচ আয়ারল্যান্ডের প্রধান খাদ্যপণ্য হিসেবে শ্রেণীভুক্ত করা যায়। আর এতে করে তারা আশা প্রকাশ করেছে যে, ভবিষ্যতেও তারা প্রধান খাদ্যপণ্য বিক্রেতা হিসেবে শুল্ক থেকে অব্যাহতি পাবে।

Related posts

সাম্প্রতিক © ২০২১ । সম্পাদক. ব্রাত্য রাইসু । ৮১১ পোস্ট অফিস রোড, বাড্ডা, ঢাকা ১২১২