২০২০ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউ ইয়র্ক আদালত তাকে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করে। হলিউডের প্রভাবশালী প্রযোজক ওয়াইন্সটিনের বিরুদ্ধে সাবেক প্রযোজনা সহকারী মিরিয়াম হেলিকে যৌন নির্যাতন ও অভিনেত্রী জেসিকা মান’কে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হয়। এরপর ১১ মার্চ, ২০২০ তারিখ তাকে ২৩ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

কিন্তু ২৪ ফেব্রুয়ারি অপরাধী ঘোষণা করার পরপরই বুকে ব্যথার দোহাই দিয়ে বেলভ্যু হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। সেখানে একটি হার্ট প্রোসিজার চালানো হয় তার ওপর। এরপর গত ৫ মার্চ তাকে নিউ ইয়র্কের রাইকার্স আইল্যান্ড কারাগারে হস্তান্তর করা হয়। এরপর ১৮ মার্চ তাকে নিয়ে আসা হয় ওয়েন্ডি সংশোধনী কেন্দ্রে।

২২ মার্চ, ২০২০ তারিখ হার্ভির করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের রেজাল্ট পজিটিভ আসে। সাথে সাথে চিকিৎসার জন্য তাকে আলাদা করে আইসোলেশনে রাখা হয়। একজন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্মী ‘ডেডলাইন’কে এসব তথ্য দিয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারীতে অ্যামেরিকায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের অধিবাসীরা। এরই মধ্যে রাইকার্স আইল্যান্ড কারাগারে বন্দি ৪০ জন আসামীর করোনাভাইরাস টেস্ট পজিটিভ এসেছে।

২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে অস্কার জয়ী প্রযোজক হার্ভি ওয়াইন্সটিনের নামে ৫০ জনেরও বেশি মহিলা ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির অভিযোগ করলে তাকে নিজের প্রযোজনা সংস্থা ‘ওয়াইন্সটিন কোম্পানি’ থেকে বহিষ্কার করা হয়। সেই সাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় হলিউডের যৌন হয়রানি সংশ্লিষ্ট ঘটনা প্রকাশের উদ্দেশ্যে চালু হয় ক্যাম্পেইন, যার ফলে অভিনেতা কেভিন স্পেসি, কমেডিয়ান লুইস সি কে এবং পরিচালক ব্রেট র‍্যাটনার একইভাবে অভিযুক্ত হন। মিডিয়ায় এই ঘটনাকে ‘ওয়াইন্সটিন ইফেক্ট’ নামে উল্লেখ করা হয়। আর ওয়াইনস্টিনকে অভিযুক্ত করা থেকে শুরু হওয়া সোশ্যাল মিডিয়ার সেই ক্যাম্পেইনটিই হলো—যা এখন বিশ্বজুড়ে সামাজিকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে— নারী নির্যাতন বিরোধী ‘মি টু’ ক্যাম্পেইন।

সূত্র. ডেডলাইন

Recommended Posts