ভূমিকম্পে ফুকুশিমা অঞ্চল জুড়ে প্রায় ৯ লাখেরও বেশি পরিবার বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে।

গত শনিবার রাতে একটি শক্তিশালী ভূমিকম্প জাপানের পূর্বাঞ্চলের বৃহৎ এলাকায় আঘাত হানে। ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল দেশটির ফুকুশিমা উপকূলের কাছেই, যেখানে প্রায় ১০ বছর আগে ভূমিকম্প এবং সুনামির ফলে ৩টি পারমাণবিক চুল্লি ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল।

জাপানের আবহাওয়া অধিদপ্তর প্রাথমিক ভাবে ধারণা করেছিল যে, ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৭.১। পরে তারা নিশ্চিত হওয়ার পরে ঘোষণা করে, প্রকৃতপক্ষে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭.৩। তবে এতে সুনামি হওয়ার কোনো আশঙ্কা ছিল না।

রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ভূমিকম্পে কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। তবে রাষ্ট্রীয় মিডিয়া সংস্থা ‘এনএইচকে’-র তথ্য অনুযায়ী, ভূমিকম্পের ফলে ১০০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছে।

ভূমিকম্পে ফুকুশিমা অঞ্চল জুড়ে প্রায় ৯ লাখেরও বেশি পরিবার বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। তাছাড়া ভূমিকম্পের ফলে রাস্তাঘাট এবং রেললাইন বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন।

এর আগে ২০১১ সালে ৮.৯ মাত্রার ভয়ঙ্কর এক ভূমিকম্প সংঘটিত হয়েছিল এখানে। সে ভূমিকম্পের কারণে যে সুনামি হয় তাতে ১৬,০০০-এরও বেশি মানুষ মারা গিয়েছিল। ছবিতে সাম্প্রতিক ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ফুকুশিমা।