রাশিয়ার প্রশাসনের পক্ষ থেকে সের্গেই তরোপ নামে একজন ধর্মীয় নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ৫৯ বছর বয়সী সের্গেই অনেক দিন থেকেই দাবি করে আসছেন যে, তার নিজের শরীরে যিশুখ্রীষ্টের পুনর্জন্ম হয়েছে।

গত প্রায় তিন দশক ধরে সাইবেরিয়ার গভীর অঞ্চলে একটি ধর্মীয় সংগঠন পরিচালনা করছিলেন সের্গেই। রাশিয়ার প্রশাসনের পক্ষ থেকে গঠিত তদন্ত কমিটির মতে, সের্গেই সেই ধর্মীয় সংগঠন অবৈধভাবে গড়ে তুলেছিলেন। তার বিরুদ্ধে সংগঠনের অনুসারীদের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ এবং মানসিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ আনা হবে।

আজ হেলিকপ্টারযোগে ভারি অস্ত্রে সজ্জিত রাশিয়ার যৌথবাহিনীর একটি দল সের্গেই এর ঘাটিতে অভিযান চালায়। এই অভিযানে সের্গেইসহ তার প্রধান দুইজন সহকারীকে আটক করা হয়।

ধর্মীয় নেতা হওয়ার আগে সের্গেই তরোপ ট্রাফিক অফিসারের পদে চাকরি করতেন। ১৯৮৯ সালে চাকরি হারানোর পরে তিনি দাবি করেন যে, তার মধ্যে এক ধরনের আধ্যাত্মিক জাগরণ ঘটেছে। ১৯৯১ সালে তিনি ‘চার্চ অফ দ্যা লাস্ট টেস্টামেন্ট’ নামে একটি ধর্মীয় সংগঠন গড়ে তোলেন। অনুগামীদের কাছে সের্গেই ‘ভিসেরিওন’ নামেও পরিচিত। তার প্রায় কয়েক হাজার অনুগামী সাইবেরিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চল ক্রাসনোয়ারস্কে নিজেদের মতো করে বসবাস করে। রাশিয়া ছাড়াও পৃথিবীর অন্যান্য অনেক দেশেও তার বহু অনুসারী রয়েছে।