ইনভেস্টমেন্ট অ্যাডভাইজার বা বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা জন ডি স্পুনার সপ্তাহের ছুটির দিনগুলিতেও কয়েক ঘণ্টার জন্য অফিসে যেতেন।

সাধারণত সবাই এটা করে না। শুক্রবার বা শনিবার বা অন্যান্য দেশগুলিতে রবিবারে কদাচিৎ কেউ হয়ত বা তার অফিসে যায়।

জন ডি স্পুনার বলেন, আমি যখন উইকএন্ডে বা সপ্তাহের শেষদিনগুলিতে অফিসে ওভারটাইম করতে যেতাম তখন দেখতাম অফিসের গ্যারেজে পার্ক করা প্রতিটি গাড়িই অনেক দামি গাড়ি, অনেক উঁচু শ্রেণীর এবং সবচেয়ে অভিজাত গাড়ি।

‘নো ওয়ান এভার টোল্ড আস দ্যাট: মানি অ্যান্ড লাইফ লেসনস ফর ইয়াং অ্যাডাল্টস’ বইয়ে স্পুনার বলেন এখান থেকে স্পষ্টতই একটা জিনিস শেখা যায়। আপনি যদি আপনার এবং আপনার পরিবারের জন্য ভালো একটি জীবন চান তাহলে এখানে বিনিময়ের ব্যাপার আছে, এর বিনিময়ে কিছু আপনাকে দিতে হবে। তার একটা হতে পারে, যখন কেউ অফিসে থাকেও না তখনও আপনাকে কাজের জন্য সেখানে যেতে হবে। আপনি নিজে ছাড়া কেউ আপনাকে না দেখলেও আপনার কাজের জন্য আপনাকে সেখানে যেতে হতে পারে। কারণ আপনিই সেই ব্যক্তি যাকে ডোনাটটি তৈরি করতে হবে।

স্পুনার বলেন যে তিনি প্রায়ই শোনেন তরুণেরা বা যুবকেরা কথা বলে যে তারা জীবন আর কাজের একটা ব্যালেন্স করতে চায়। এবং যদি এটা সহজেই ঘটে তাহলে তা আপনাকে ধনী বানাতে পারবে না।

স্পুনার লিখেছেন, বাস্তব পৃথিবীতে যেটি বের হয়ে আসে তা হলো, আপনি যদি এই ব্যালেন্স চান তাহলে আপনি প্রায় কখনোই নিজেকে অর্থনৈতিকভাবে মুক্ত করতে সমর্থ হবেন না।

স্পুনার দেখেছেন যে প্রায় সব বিলিয়নিয়াররাই নিজেদেরকে তাদের ক্যারিয়ারে সম্পূর্ণ উৎসর্গ করেছেন। তিনি বলেন, তারা তাদের কাজ বা উদ্দেশ্যের ব্যাপারে যতটা কেয়ার করে তারা আপনার বা তাদের স্ত্রী, সন্তান অথবা বন্ধু অথবা অন্য কারো ব্যাপারে কখনোই ততটা কেয়ার করে না, কেয়ার করেও নি।

অবশ্যই আপনাকে উইকএন্ডে বা ছুটির দিনগুলিতে কাজ করতে হবে না। স্পুনার বলেন, আপনি অন্য রাস্তা বেছে নিতে পারেন। কিন্তু আগে অথবা পরে, লং রানে বা পরবর্তী ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো টাকা। অথবা বলা যায়, টাকার অভাব।

স্পুনার উপদেশ দিয়েছেন, সুতরাং অনেক অবসর সময় পাওয়া যাবে এমন অপশন বেছে নেওয়ার আগে আপনি চিন্তা করে দেখুন এর বিনিময়ে আপনি কী ছাড়তে যাচ্ছেন।

ওয়েব লিংক: johndspooner.com